নিম একটি শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধের উৎস - বিডি খবর ডটকম
ঢাকা, বাংলাদেশ | বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই ২০২২ , ২৩ আষাঢ় ১৪২৯

শিরোনামঃ

প্রচ্ছদ চিত্র বিচিত্র লাইফস্টাইল নিম একটি শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধের উৎস

নিম একটি শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধের উৎস

bd

নিমের বহু গুণাগুণের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নিমকে ‘একুশ শতকের বৃক্ষ’ বলে ঘোষণা করেছে। করোনা রোধে টিকার পাশাপাশি প্রাকৃতিক উপাদানও বেশ উপকারী। মেডিকেল নিউজ টুডের তথ্যানুযায়ী, নিম একটি শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট যা ফ্রি র‌্যাডিকেলগুলির প্রভাবকে হ্রাস করে।

আয়ুর্বেদের মতে, নিম চিনি বা চিনির মিছরির সঙ্গে খেলে কাশি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। চাইলে প্রতিদিন একটি করে নিম ক্যাপসুলও নিতে পারেন। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি নিমপাতা অনেক রোগ নিরাময়েরও ক্ষমতা রাখে। এটি লিভার এবং হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখে। তিতা স্বাদের কারণে অনেকে নিম পাতার রস খেতে না চাইলেও প্রতিদিন সকালে খালি পেটে নিম পাতার রস খাওয়া শুধু শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় না, শারীরিক নানা অসুস্থতাও কাটিয়ে উঠতে সহায়তা করে।
নিম পাতায় থাকা অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল, অ্যান্টি-ভাইরাল এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্যে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী রাখতে সহায়তা করে। এটি দেহের অভ্যন্তরে উপস্থিত অন্ত্রের ব্যাকটেরিয়াকেও মেরে ফেলে। এটি পেট পরিষ্কার রাখে এবং সে কারণেই এটি ত্বকের জন্যও কার্যকর। নিম পাতা হজমের জন্যও উপকারী। এক কাপ নিমপাতায় ক্যালোরি থাকে ৩৫ গ্রাম। ফলে প্রতিদিন নিমপাতার রস খেলে রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

নিম পাতার নির্যাসে ডায়াবেটিস, ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার বৈশিষ্ট্য রয়েছে। নিমের কাণ্ড, মূল, বাকল এবং কাঁচা ফল সব ধরনের রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষমতা রয়েছে। নিমের ছালও গ্রামাঞ্চলে ত্বকের রোগ নিরাময়ে ব্যবহৃত হয়। এটি এমন একটি ওষুধি যা শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থগুলো বের করতে সাহায্য করে। এটি রক্ত সঞ্চালনও ঠিক রাখে।

নিম ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে চমৎকার ভাবে কাজ করে। নিমের পাতা রক্তের সুগার লেভেল কমতে সাহায্য করে। এছাড়াও রক্তনালীকে প্রসারিত করে রক্ত সংবহন উন্নত করে। ভালো ফল পেতে নিমের কচি পাতার রস প্রতিদিন সকালে খালি পেটে পান করুন। সকালে খালি পেটে ৫টি গোলমরিচ ও ১০টি নিম পাতা বেটে খেলে তা ডায়াবেটিস কমাতে সাহায্য করে।

প্রতিদিন কাঁচা পাতা পাওয়া না গেলে নিম পাতা ডাল থেকে ছড়িয়ে সিল-পাটায় বেটে মিহি করে নিতে হবে। এরপর ছোট ছোট বড়ি করে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। তারপর কাঁচের বোতলে এটি অনেকদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়। এর গুণাগুণ ভালো থাকবে।

শেয়ার করুনঃ
0 ভিউ

বুড়িচং উপজেলা আইনশৃংখলা ও সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

তরুন উদ্যোক্তা নাসিমা জাহান বিনতী’র গ্লোবাল ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড ২০২২ অর্জন।

মুরাদনগরে বর্ণ্যঢ্য আয়োজনে আজকের পত্রিকার‘র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

মুরাদনগর সদর ইউপি নির্বাচন, করোনার দূর্দিনে যে পাশে ছিলো তাকেই ভোট দিবো

বুড়িচংয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে দুটি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

সরাইল কেন্দ্রীয় কালীবাড়ির নতুন পরিচালনা কমিটি গঠন। দিলীপ বনিক সভাপতি,অসীম ধর সাধারণ সম্পাদক।

” ডিজিটাল রিপোর্টিং “-এ মমিন মোল্লার প্রশিক্ষণ লাভ।। সংবাদদাতা//

মুরাদনগরে মেম্বার প্রার্থী মনিরুল ইসলামের উঠান বৈঠক

মুরাদনগরে পিছিয়েপড়া নারীদের সংগঠিত করে উন্নয়নে অংশ নিতে চাই ….. এডঃ আসমা আক্তার রত্না

মুরাদনগরে তিন গ্রামের প্রায় ২৫০টি অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

বিয়ের প্রলোভনে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

চেলসির সঙ্গে ড্র, ফাইনালের পথ কঠিন হলো রিয়ালের

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে দিল্লিকে হারিয়ে শীর্ষে কোহলিরা

আরও ২/৩ দিন হাসপাতালে থাকতে হবে খালেদা জিয়াকে

খাদ্যের সঙ্গে পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিতেও কাজ হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী

রাজধানীতে অভিযানে গ্রেফতার ৩০

ওবায়দুল কাদের আপনি রেহাই পাবেন না: কাদের মির্জা

নিম একটি শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধের উৎস

অর্থকষ্টে পড়েই মহামারীর মধ্যে শুটিং করেছেন শ্রুতি!

রাজধানীর নবাবগঞ্জে বাস ডিপোতে আগুন


উপরে